বাংলাদেশ সরকারেকে কানেক্ট বাংলাদেশ এর নেতৃবৃন্দের কৃতজ্ঞতা

প্রকাশিত: ৮:০৪ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ২২, ২০২০

বাংলাদেশ সরকারেকে কানেক্ট বাংলাদেশ এর নেতৃবৃন্দের কৃতজ্ঞতা

কোভিড-১৯ য়ে মৃত প্রবাসীদের পরিবারকে সাহায্য ঘোষনা করায় বাংলাদেশ সরকারেকে কানেক্ট বাংলাদেশ এর নেতৃবৃন্দ কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন। এক যৌথ বিবৃতি দিয়েছেন নিউইয়র্ক থেকে হাকিকুল ইসলাম খোকন, অটোয়া থেকে আজিজুল হক, লন্ডন থেকে নাজিম চৌধূরী, অষ্ট্রিয়া থেকে বুলবুল তালুকদার, সিঙ্গাপুর থেকে মহসীন মালহার ও জাপান থেকে মাসুম জাকির।

নেতৃবৃন্দ বিবৃতিতে বলেছেন, নভেল করোনা ভাইরাস তথা ‘কোভিড-১৯’ এর প্রাদুর্ভাবে বিশ্বের প্রায় সকল দেশ আতঙ্কিত। বিশ্বময় টালমাটাল অবস্থা। পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে প্রবাসীগন মাথার ঘাম পায়ে ফেলে শ্রম বিনিয়োগ করে রেমিট্যান্স প্রেরণের মাধ্যমে দেশের অর্থনীতিকে সচল ও সমৃদ্ধ করার জন্য প্রাণপণ লড়াই করে চলেছেন। ’কোভিড-১৯’ মহামারীতে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ বাংলাদেশ থেকে প্রেরিত জনশক্তিকে দেশে ফেরত পাঠিয়ে দেয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছে। অনেক ক্ষেত্রে পাঠিয়ে দেয়ার খবরও শোনা যায়। যার ফলে অনেক পরিবার ও দেশ মূল্যবান বৈদেশিক মুদ্রাখাত থেকে বন্চিত হবে।এমতাবস্থায়, গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের প্রবাসী কল্যান ও কর্মসংস্হান মন্ত্রনালয় কোভিড-১৯ য়ে মৃত পরিবার বা স্বজনদের সহায়তা প্রদান করার ঘোষনা দেন। সর্বোপরি ইতিমধ্যেই যে সমস্ত প্রবাসীগন কর্মহীন ও মানবেতর জীবনযাপন করছেন সংশ্লিষ্ট দেশগুলোর দূতাবাসের মাধ্যমে সরাসরি সহযোগীতার বিষয়টি উল্লেখ করেছেন। সাংবাদিকদের সরাসরি সাহায্য প্রদানের বিষয়টির খোঁজখবরও নিতে বলেছেন প্রবাসী কল্যান ও কর্মসংস্হান মন্ত্রী এমরান আহমদ এমপি। অদূর ভবিষ্যতে দেশে অবস্থানরত বা আগত প্রবাসীদের কল্যানে ফেরত আসা প্রবাসীদের জীবনযাত্রার চাকাকে সচল রাখার অনুপ্রেরনা যোগাতে ঋণ সহায়তা প্রদানের উদ্দ্যোগ নেয়া যেতে পারে বলে জানা যায়। যদি এ ধরনের উদ্দ্যোগ নেয়া হয়-তাহলে ভবিষ্যতে তা প্রবাসীদের মহাদূর্দিনে সামান্যতম হলেও বেঁচে থাকার অবলম্বন হিসাবে সহায়তা করবে বলে বিশেষজ্ঞ মহল মনে করেন। খবর বাপসনিউজ।
প্রবাসী কল্যান ও কর্মসংস্হান মন্ত্রনালয় ও পররাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ের যৌথ এই উদ্দ্যোগকে স্বাগত: জানিয়ে প্রবাসীগনের আন্তর্জাতিক সংগঠন ‘কানেক্ট বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনালে’র নেতৃবৃন্দ গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের প্রতি গভীর কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন। সরকার প্রবাসবান্ধব হিসেবে আগামীর দিনগুলোতেও প্রবাসীগনের স্বার্থ ও অধিকার সংরক্ষনে বলিষ্ট পদক্ষেপ অব্যাহত রাখবেন বলে সংগঠনের নেতৃবৃন্দ আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

(বিজ্ঞপ্তি)