সাংবাদিক সাজিদা ইসলাম পারুলের মামলায় সাংবাদিক প্লাবনের ভাই গ্রেপ্তার

প্রকাশিত: ৫:৫৮ পূর্বাহ্ণ, জুন ২৮, ২০২০

সাংবাদিক সাজিদা ইসলাম পারুলের মামলায় সাংবাদিক প্লাবনের ভাই গ্রেপ্তার

ঢাকা, ২৮ জুন ২০২০: সাংবাদিক সাজিদা ইসলাম পারুলের দায়ের করা নির্যাতন, যৌতুক দাবি ও ভ্রুণ হত্যার মামলায় তার স্বামী সাংবাদিক রেজাউল করিম প্লাবনের ছোট ভাই নিজাম উদ্দিনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার মধ্যরাতে কুড়িগ্রামের চিলমারী থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে তদন্ত কর্মকর্তা ঢাকার হাতিরঝিল থানার এসআই সুব্রত দেবনাথ জানিয়েছেন।
তিনি বলেন, “প্লাবনের চিলমারীর বাড়িতে নিজাম ছাড়া আর কাউকে পাওয়া যায়নি।”
এই মামলায় প্লাবন ছাড়াও তার দুই ভাই এবং বাবা-মাকে আসামি করা হয়েছে। প্লাবনসহ সবাইকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে বলে এসআই সুব্রত জানিয়েছেন।
চলতি বছরের ২ এপ্রিল যুগান্তরের সাংবাদিক প্লাবনের সাথে সমকালের সাংবাদিক পারুলের বিয়ে হয়। পারুলের অভিযোগ, বিয়ের পর শ্বশুড়বাড়ি যাওয়ার জন্য বললে প্লাবন যৌতুক হিসাবে একটি ফ্ল্যাট দাবি করেন। তাছাড়া একাধিক নারীর সঙ্গে সম্পর্কের বিষয়টি বিয়ের পর জানতে পেরে তার প্রতিবাদ করেছিলেন তিনি।
বিয়ের এক মাসের মাথায় প্লাবন ‘মায়ের অসুস্থতার কথা বলে’ বাড়ি চলে যান। সে সময় তিনিও যেতে চাইলে তাকে মারধর করা হয় এবং তখন তিনি অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন বলে পারুল মামলায় অভিযোগ করেছেন।
অন্তঃসত্ত্বার সময় মারধরের কারণে নানা সমস্যা হওয়ার কথা স্বামীকে জানালেও তিনি তাতে গুরুত্ব দেননি বলে অভিযোগ করেন পারুল।
তিনি মামলায় বলেছেন, পরে ৫ মে স্বামীর বাড়িতে গেলে সেখানে প্লাবনের বাবা-মা ও ভাইয়েরা তাকে মেনে নিতে চাননি। পরে তারা একইভাবে যৌতুক দাবি করেন। এক পর্যায়ে গ্রামের বাড়িতেও প্লাবনের পরিবারের সদস্যরা তাকে মারধর করেন। পরে স্থানীয় সংবাদিকরা তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় থানায় নিয়ে যান।
সেখানকার থানা পুলিশ বলেছে, ঢাকায় বিয়ে হয়েছে মামলাও ঢাকায় হবে। এরপর তিনি ঢাকায় এসে অভিযোগ করেন বলে পারুল মামলায় উল্লেখ করেন।
ওই মামলার পর বেশ কিছু দিন পার হলেও আসামিদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা না হওয়ায় বুধবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে প্ল্যাকার্ড হাতে দাঁড়ান পারুল। ন্যায়বিচার পেতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন। শনিবারও সেখানে ‘বোন পারুলের জন্য আমরা’ ব্যানারে মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়।
তদন্ত কর্মকর্তা এসআই সুব্রত বলেন, প্লাবনসহ মামলার বাকি চার আসামিকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন তারা।