একজন অতিমানবীর আত্মসমর্পণ অথবা অহংকার পতনের মূল

প্রকাশিত: ৬:০৫ পূর্বাহ্ণ, জুন ৩০, ২০২০

একজন অতিমানবীর আত্মসমর্পণ অথবা অহংকার পতনের মূল

|| জেসমিন চৌধুরী || ৩০ জুন ২০২০ : আমি হতাশাব্যঞ্জক পোস্ট দিই না বললেই চলে। জীবনের সবচেয়ে খারাপ সময়েও চেষ্টা করি আশা জাগানিয়া কথা বলতে। তবে নিজের অনিবার্য ব্যর্থতাকে হাসিমুখে মেনে নেয়াকেও চাইলে এক ধরনের ইতিবাচকতা হিসেবে দেখা যেতে পারে। আমি সেভাবেই দেখছি।

মে মাসের শুরুতে একটা চ্যালেঞ্জ নিয়েছিলাম- আমার জন্মদিন এগারো অগাস্টের আগে পাঁচশো কিলোমিটার দৌঁড়াবো/হাঁটব। দেবর মুসার অসুস্থতা এবং মৃত্যুর সময়ে প্রায় দুই সপ্তাহ একটা কদম‌ও হাঁটতে পারিনি। ঐ সময়টা বাদ দিয়ে ছয় সপ্তাহে ২৯০ কিলোমিটার হয়েছে যার প্রায় অর্ধেকটা দৌড়েছি, অর্ধেকটা হেঁটেছি।

আমার চ্যালেঞ্জের কথা শুনে দুই একজন বলেছিলেন এটা সম্ভব নয়। বেশিরভাগ পাঠক/ বন্ধু বলেছিলেন- ‘আপনি নিশ্চয়ই পারবেন আপা।’ আমি উৎসাহিত বোধ করেছিলাম। ঠিক করেছিলাম চ্যালেঞ্জ শেষ হলে আপনাদের কাছে পুরষ্কার চাইব- আমার হয়ে কোনো চ্যারিটিতে সাধ্য মতো দান করতে অনুরোধ করব।

ভালোই চলছিল সবকিছু। একজন ব্রেইন হেমারেজ সারভাইভার হ‌ওয়া সত্ত্বেও দিনে আট দশ কিলোমিটার হাঁটা অথবা একটানা পাঁচ কিলোমিটার দৌড়ানোকে কোনো ব্যাপার‌ই মনে হচ্ছিল না। বলেছিলাম পাঁচশো, মনে মনে ভেবেছিলাম আটশোর মতো পারব। কে জানতো আমার জন্য ভাগ্যের পরিকল্পনা ভিন্ন ছিল।

কিছুদিন ধরে হার্টে একটু সমস্যা অনুভব করছিলাম। ডাক্তার দেখাতে গিয়ে জানতে পারলাম ব্রেইন হেমারেজের সময়েই হার্টে হালকা একটা সমস্যা ধরা পড়েছিল। ডাক্তার সন্দেহ করছেন এখন তা আরেকটু বেড়েছে কাজেই নতুন করে ইকোগ্রাম করাতে হবে। করোনার দরূন তা খুব দ্রুত করা সম্ভব নাও হতে পারে। কাজেই আপাতত আমাকে সুপার‌উয়োমেন পদ থেকে ইস্তফা দিতে হবে। লম্বা হাঁটাহাঁটি তো দূরের কথা, সমস্ত ইনভেস্টিগেশন শেষ না হ‌ওয়া পর্যন্ত ঘরের কাজকর্ম, সিঁড়ি বাওয়াবাওয়ি, বাগানে খোড়াখুড়ি, ওজন ব‌ওয়াব‌ওয়ি সম্পূর্ণরূপে নিষিদ্ধ।

বাসায় এখন সিরিয়াস পরিস্থিতি বিরাজ করছে, আমার বিরুদ্ধে তীব্র জনমত গড়ে উঠেছে। আমার ফিটনেসের অহংকার চূর্ণ হয়েছে, আমার সমস্ত ক্ষমতা হরণ করা হয়েছে।
ঘরের ভেতরে গড়ে তোলা বিশাল অর্কিড নার্সারি মেইনটেইন করাও আর সম্ভব হবে না বোধ হয়।

আমার দৃঢ় বিশ্বাস ইনভেস্টিগেশনের ফলাফল ভালো আসবে। আমি আবার ফিটনেসের বড়াই করব। আবার নতুন করে চ্যালেঞ্জ নেবার সাহস পাব। কিছুটা সময় লাগবে এই যা!

আমি জানি আপনারা আমার জন্য দোয়া করবেন, তবে আমি অনেক অনেক প্রশ্নের উত্তর দিতে পারব না। আমি ভালোই আছি, ভালো থাকাটা জারি রাখার জন্য‌ই আপাতত সুপার‌উয়োমেন ছুটিতে থাকবেন। নো ঝগড়াঝাটি, নো স্ট্রেস। সবার জন্য শুভকামনা এবং ভালোবাসা র‌ইলো।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ