বিনামূল্যে ইন্টারনেট একসেসসহ স্মার্টফোন ও কম্পিউটার ক্রয়ে সহায়তার দাবিতে ছাত্রমৈত্রীর মানববন্ধন

প্রকাশিত: ১:২৮ অপরাহ্ণ, জুলাই ১৯, ২০২০

বিনামূল্যে ইন্টারনেট একসেসসহ স্মার্টফোন ও কম্পিউটার ক্রয়ে সহায়তার দাবিতে ছাত্রমৈত্রীর মানববন্ধন

ঢাকা, ১৯ জুলাই ২০২০: বিনামূল্যে ইন্টারনেট একসেসসহ শতভাগ শিক্ষার্থীকে সহজ শর্তে স্মার্টফোন ও কম্পিউটার ক্রয়ে সহায়তা প্রদানের দাবিতে আজ রবিবার সকাল ১১টায় ঢাকাস্থ জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন করেছে বাংলাদেশ ছাত্রমৈত্রী।

সংগঠনটির কেন্দ্রীয় সহ সভাপতি অতুলন দাস আলোর সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক কাজী আব্দুল মোতালেব জুয়েলের সঞ্চালণায় উক্ত মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক সভাপতি এবং উক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক নির্বাচিত সিনেট সদস্য সাদাকাত হোসেন খান বাবুল, সাবেক সাধারণ সম্পাদক তানভীর রুসমত, গণতান্ত্রিক গার্মেন্টস শ্রমিক কর্মচারী ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক বাচ্চু মিয়া, কেন্দ্রীয় দপ্তর সম্পাদক হাসিদুল ইসলাম ইমরান, রাজনৈতিক শিক্ষা ও গবেষনা বিষয়ক সম্পাদক ও ঢাকা মহানগর শাখার সভাপতি ইয়াতুন্নেসা রুমা প্রমুখ।
বক্তব্যে সাদাকাত হোসেন খান বাবুল বলেন, “এই করোনাকালীন সময়ে চলতি অর্থবছরে বাজেট ঘোষণা করা হয়েছে। আমরা আশা করেছিলাম, দেশের করোনা সংক্রমণের ফলে সৃষ্ট অর্থনৈতিক মন্দা বিবেচনায় স্বাস্থ্য, শিক্ষা ও শিক্ষার্থী বান্ধব একটি বাজেট পাবো। কিন্তু করোনাকালীন সময়ের বিবেচনাতেও শিক্ষাখাতে বরাদ্দ বাড়ানো হয়নি বললেই চলে। বরং মূল্যস্ফীতি ও প্রবৃদ্ধির বিবেচনায় শিক্ষাতে বরাদ্দ কমানো হয়েছে। বিভিন্ন ব্যবসায়ী, উদ্যোক্তাদের জন্য চলতি অর্থবছরের বাজেটে বিভিন্ন ভর্তুকি ও প্রনোদনা প্যাকেজ রাখা হলেও শিক্ষার্থী ও তাদের পরিবারের অর্থনৈতিক সংকট বিবেচনায় কোনো ভর্তুকি বা প্রনোদনা ঘোষণা করা হয়নি। বরাবরের মত এমন দুর্যোগকালেও উপেক্ষিত হলো শিক্ষার্থী, শিক্ষাখাত ও স্বাস্থ্যখাত। বর্তমান প্রেক্ষাপটে অনলাইন শিক্ষার উপরে জোর দেয়া হলেও বৃদ্ধি করা হলো স্মার্টফোন, কম্পিউটার বা ল্যাপটপ ও ইন্টারনেটের মূল্য। এই দ্বিচারিতার মাসুল ছাত্রদের দিতে হচ্ছে। এখনো দেরি হয়ে যায়নি। সরকারের উচিত সকল শিক্ষার্থীকে প্রযুক্তি সহায়তা ও বিনামূল্যে উচ্চগতির ইন্টারনেট দেয়ার জন্য সরকারী প্রনোদনা ঘোষনা করা।”
উক্ত মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ সভাপতি আবিদ হোসেন, সহ সাধারণ সম্পাদক শাফিউর রহমান সজীব, দপ্তর সম্পাদক হাসিদুল ইসলাম ইমরান, ঢাকা মহানগর সাধারণ সম্পাদক তানভীন আহমেদ প্রমুখ। মানববন্ধন শেষে সংগঠনের নেতৃবৃন্দ একই দাবিতে শিক্ষামন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি দেয়।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ