খ্যাতিমান কথা সাহিত্যিক সাংবাদিক রাহাত খান আর নেই

প্রকাশিত: ৫:২৮ পূর্বাহ্ণ, আগস্ট ২৯, ২০২০

খ্যাতিমান কথা সাহিত্যিক সাংবাদিক রাহাত খান আর নেই

ঢাকা, ২৯ আগস্ট ২০২০ : জাতীয় প্রেসক্লাবের সিনিয়র সদস্য খ্যাতিমান কথা সাহিত্যিক রাহাত খান আর নেই।

শুক্রবার রাত সাড়ে আটটায় তিনি ইস্কাটন গার্ডেনের নিজ বাসভবনে মৃত্যুবরণ করেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজেউন)।
তার বয়স হয়েছিল ৮০ বছর। তিনি স্ত্রী, এক ছেলে ও এক মেয়েসহ অসংখ্য আত্মীয় স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। আগামীকাল শনিবার সকাল ১১টায় জাতীয় প্রেস ক্লাবে তার মরদেহ আনা হবে।
রাহাত খান ১৯৪০ সালের ১৯ ডিসেম্বর কিশোরগঞ্জ জেলার তাড়াইল উপজেলার পূর্ব জাওয়ার গ্রামের খান পরিবারের জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ১৯৬১ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বাংলায় ¯œাতক ডিগ্রি লাভ করেন। শিক্ষা জীবন শেষে রাহাত খান ময়মনসিংহ জেলার নাসিরাবাদ কলেজ, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ও চট্টগ্রাম সরকারি কলেজসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অধ্যাপনা করেন। ১৯৬৯ সালে তিনি দৈনিক সংবাদ পত্রিকায় সাংবাদিকতা শুরু করেন। পরবর্তীতে দৈনিক ইত্তেফাকের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক ও সম্পাদক হিসেবে কর্মরত ছিলেন। রাহাত খান ১৯৯৬ সালে বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক প্রদত্ত দ্বিতীয় সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মাননা একুশে পদকে ভূষিত হন। এ ছাড়াও তিনি বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার (১৯৭৩), সুহৃদ সাহিত্য পুরস্কার (১৯৭৫), সুফী মোতাহার হোসেন পুরস্কার (১৯৭৯), আবুল মনসুর আহমদ স্মৃতি পুরস্কার (১৯৮০), হুমায়ুন কাদির স্মৃতি পুরস্কার (১৯৮২), ত্রয়ী সাহিত্য পুরস্কার (১৯৮৮) এবং দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রাষ্ট্রীয় একুশে পদক (১৯৯৬) পেয়েছেন।
বর্ণাঢ্য সাংবাদিকতা জীবনে রাহাত খান কথাশিল্প, ছোটগল্প, প্রবন্ধ-নিবন্ধ ও উপন্যাসের নিপুণ কারিগরে পরিণত হন। ১৯৭২ সালে তার প্রথম গল্পগ্রন্থ ‘অনিশ্চিত লোকালয়’ প্রকাশিত হয়। তার পরবর্তী উপন্যাস ও গল্পগ্রন্থের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে-অমল ধবল চাকরি, ছায়াদম্পতি, শহর, হে শূন্যতা, হে অনন্তের পাখি, মধ্য মাঠের খোলোয়াড়, এক প্রিয়দর্শিনী, মন্ত্রিসভার পতন, দুই নারী, কোলাহল ইত্যাদি।
জাতীয় প্রেসক্লাব সভাপতি সাইফুল আলম ও সাধারণ সম্পাদক ফরিদা ইয়াসমিন এক বিবৃতিতে রাহাত খানের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন। শোকবার্তায় তারা বলেন, রাহাত খানের মৃত্যুতে সাংবাদিক সমাজের অপূরণীয় ক্ষতি হল। তারা মরহুমের শোকাহত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

ওয়ার্কার্স পার্টির শোক

জাতীয় প্রেসক্লাবের সিনিয়র সদস্য খ্যাতিমান কথা সাহিত্যিক রাহাত খানের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন এমপি ও সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশা এমপি।

রাষ্ট্রপতির শোক

রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ আজ দেশের বিশিষ্ট সাংবাদিক, উপন্যাসিক ও দৈনিক ইত্তেফাকের সাবেক সম্পাদক রাহাত খানের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন।
এক শোক বার্তায় রাষ্ট্রপতি বলেন, সাংবাদিক রাহাত খান স্বাধীনতা চর্চা ও সমাজের অগ্রযাত্রায় অসামান্য অবদান রেখেছেন।
আবদুল হামিদ বলেন, ‘তার (রাহাত খান) মৃত্যু সাংবাদিকতা ও সাহিত্য ক্ষেত্রে সত্যিকার অর্থেই অপূরণীয় ক্ষতি।’

প্রধানমন্ত্রীর শোক

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিশিষ্ট সাংবাদিক ও সাহিত্যিক রাহাত খানের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন।
এক শোক-বার্তায় প্রধানমন্ত্রী গভীর শ্রদ্ধার সঙ্গে সাংবাদিকতা ও সাহিত্যের ক্ষেত্রে রাহাত খানের অসামান্য অবদানের কথা স্মরণ করেন।
তিনি বলেন, ‘তার (রাহাত খান) মৃত্যুতে এইসব অঙ্গনের জন্য অপূরণীয় ক্ষতি হলো।’
শেখ হাসিনা মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন এবং শোক-সন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

ওবায়দুল কাদেরের শোক

খ্যাতিমান সাংবাদিক ও সাহিত্যিক রাহাত খানের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের এমপি।
আজ এক শোকবার্তায় তিনি মরহুমের আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান।

তথ্যমন্ত্রীর শোক

তথ্যমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বিশিষ্ট কথা সাহিত্যিক ও খ্যাতিমান সাংবাদিক রাহাত খানের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন।
তিনি আজ এক শোকবার্তায় এই শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেন।
তথ্যমন্ত্রী মরহুম রাহাত খানের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন ও তার পরিবারের শোক-সন্তপ্ত সদ্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।
ড. হাছান মাহমুদ শোকবার্তায় বলেন, রাহাত খান দেশের একজন অনন্য খ্যাতিমান কথাশিল্পী ও সাংবাদিক ছিলেন। ছোটগল্প, উপন্যাস সহ বাংলা সাহিত্যের বিভিন্ন অঙ্গনে ও সাংবাদিকতায় তার অবদান চির স্মরণীয় হয়ে থাকবে।

সৈয়দ অামিরুজ্জামানের শোক

জাতীয় প্রেসক্লাবের সিনিয়র সদস্য খ্যাতিমান কথা সাহিত্যিক রাহাত খানের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির মৌলভীবাজার জেলা সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য, অারপি নিউজের সম্পাদক ও বিশিষ্ট কলামিস্ট সৈয়দ অামিরুজ্জামান।

তাঁর মৃত্যুতে অারও শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির মৌলভীবাজার জেলা সম্পাদক তাপস কুমার ঘোষ, শ্রীমঙ্গল উপজেলা শাখার সভাপতি দেওয়ান মাসুকুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক জালাল উদ্দিন এবং শ্রীমঙ্গল পৌর শাখার সভাপতি শেখ জুয়েল রানা ও সাধারণ সম্পাদক রোহেল অাহমদ।