এ কে আনামের দ্বাদশ প্রয়াণ দিবস অাজ: কালজয়ী গানের অমর সুরস্রষ্টার প্রতি গভীর শ্রদ্ধা

প্রকাশিত: ১:২৪ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২৮, ২০২০

এ কে আনামের দ্বাদশ প্রয়াণ দিবস অাজ: কালজয়ী গানের অমর সুরস্রষ্টার প্রতি গভীর শ্রদ্ধা

|| মলয়কান্তি পাল মলয় || শ্রীমঙ্গল, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ : সুরমা নদীর তীরে আমার ঠিকানারে

বাবা শাহজালালের দেশ সিলেট ভূমিরে…
সকল সিলেটিদের এই পরিচিতিমূলক বা
branding song-টি সহ সিলেট পাইলে
যেমন তেমন / আইজ আমারে আনিয়া দেওরে আসমানেরও চাঁন / ও সোনার চান্দেরে ও মায়ার চান্দেরে / বিজয় দেখিলাম রে / শ্রী আছে যার
মঙ্গলও তার এমন অসংখ্য কালজয়ী গানের অমর সুরস্রষ্টা সিলেটের আঞ্চলিক গানের অন্যতম প্রধান প্রাণপুরুষ এবং মরমি মহাজন এ কে আনামের দ্বাদশ প্রয়াণ দিবস অাজ।
গীতিকার ও সুরকার এ কে অানাম বৈচিত্র্যময় সৃষ্টিশীলতার সম্ভারে তাঁর সমকালীন
সঙ্গীত পরিমণ্ডলকে করেছেন সমৃদ্ধ। শিল্পরসের
অপ্রার্থিব অথচ সহজ, সরল, সাবলীলতা তাঁর সৃষ্টি সম্ভারকে দিয়েছে ভিন্নমাত্রা ও অনন্যতা।
এ কে আনাম আমৃত্যু তাঁর সৃজনসত্তায় ও মননে,
মানসে লোকায়ত বাংলার সহজিয়া ঘরাণাকে চর্চা
ও লালন করেছেন।

প্রকৃতির অপার বিস্ময়, লীলাভূমি এবং সবুজের স্বর্গরাজ্য নিজ নিকেতন শ্রীমঙ্গলের শ্রী-সৌন্দর্যকে
তিনি অংকন করেছেন তাঁর বিভিন্ন কথায় ও সুরে
পরম মমতায় ও সাবলীল স্বতঃস্ফূর্ততায়। আপাতদৃষ্টিতে শ্রীমঙ্গল তাঁর সাধনকেন্দ্র কিংবা চারণভূমি হলেও চিন্তায়, সৃষ্টিসঞ্চারণে ও
বৈচিত্র্যমুখী ভাবস্রোতে তাঁর ধ্রুপদী মনোদৃষ্টি সমগ্র
সিলেটের সারস্বত মহলে। দূরগামী মুসাফির হিশেবে
তিনি পরিভ্রমণ করেছেন সমগ্র সবুজ সিলেট।
তিনি যে সততই শেকড় সন্ধানী তা মূর্ত্য হয় তাঁর সুরপিয়াসী মনকে পরিব্রাজন করলে।
তাঁর অতলস্পর্শী সুরের আবহ সুরমা, কুশিয়ারা ও খোয়াই উপত্যকার মানুষকে দেশপ্রেমে প্রানিত করে। তাঁর কথা, সুর ও কারুকার্যময় কন্ঠের মনোমুগ্ধকর ব্যঞ্জনায় সমকালীন বিষয়াবলী ও প্রাকৃতজনের ভাব-বোধ পুনঃপুন চিত্রিত হয়েছে। আর সেইসাথে সামাজিক অসঙ্গতি ও অবহেলিত পিছিয়ে থাকা প্রান্তিক জনমানুষের জীবনসংগ্রামও ভাস্কর হয়েছে। সমাজ সচেতনতামূলক বিষয়াবলী ও সিলেট সহ এতদ্বঞ্চলের মানুষের দিনলিপি ও আধ্যাত্মিক
পরিমণ্ডলকে উপলক্ষ্য-উপজীব্য করে তাঁর রচিত
সঙ্গীতসমগ্র সুধীজনের অন্তঃপুরে অনন্তকাল অতি আদরণীয় হয়ে থাকবে নিঃসন্দেহে। কারন এ কে আনামের গীতিকবিতার বিষয়, প্রকাশভঙ্গি আর আঙ্গিক সম্পূর্ণ ভিন্নমাত্রার। প্রতীকী ও পরাবাস্তববাদী পরিচর্যা এ কে আনামের সৃষ্টির সম্ভারের অন্যতম বৈশিষ্ট্য। এজন্যই তিনি সমগ্র সিলেটেের সঙ্গীতাঙ্গনে স্বাতন্ত্র্যে সমুজ্জ্বল পৃথক এক কিংবদন্তি সঙ্গীতসত্তা এবং নান্দনিক নক্ষত্র।

আজ ক্ষণজন্মা ও অকালপ্রয়াত এ কে আনামের দ্বাদশ প্রয়াণ দিবস।
প্রয়াণ দিবসে এই সর্বজনীন সঙ্গীতজ্ঞকে
সতত শ্রদ্ধায় স্মরণ করছি।
যতদিন সুরমা, কুশিয়ারা কিংবা খোয়াই
থাকবে স্রোতস্বিনী, ততদিন এ কে আনাম
ও তাঁর অমর সৃষ্টিসম্ভার থাকবে চিরঅম্লান
ও চিরভাস্কর, পরিশেষে এই আশাবাদ ব্যক্ত করছি।

ক্ষণজন্মা ও অকালপ্রয়াত এ কে আনামের দ্বাদশ প্রয়াণ দিবসে কালজয়ী গানের অমর সুরস্রষ্টার প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির মৌলভীবাজার জেলা সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য, অারপি নিউজের সম্পাদক ও বিশিষ্ট কলামিস্ট সৈয়দ অামিরুজ্জামান।