আর্থসামাজিক উন্নয়নে সমবায়কে অগ্রাধিকার দিচ্ছে সরকার: মীর নাহিদ আহসান

প্রকাশিত: ২:১১ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ৭, ২০২০

আর্থসামাজিক উন্নয়নে সমবায়কে অগ্রাধিকার দিচ্ছে সরকার: মীর নাহিদ আহসান

নিজস্ব সংবাদদাতা || মৌলভীবাজার, ০৭ নভেম্বর ২০২০ : “সমবায়ের গুরুত্ব উপলব্ধি করেই সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান যুদ্ধবিধ্বস্ত বাংলাদেশের অর্থনীতিকে সুদৃঢ় করতে সমবায়কে সাংবিধানিক স্বীকৃতি দিয়েছিলেন। জাতির পিতার পদাঙ্ক অনুসরণ করেই দেশের পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর আর্থসামাজিক উন্নয়নে সমবায়কে অগ্রাধিকার দিচ্ছে সরকার। বর্তমান সরকার দেশে উৎপাদন বৃদ্ধি ও কর্মসংস্থান সৃষ্টির মাধ্যমে ক্ষুধামুক্ত, দারিদ্র্যমুক্ত, শান্তিপূর্ণ ও সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়তে বদ্ধপরিকর। এ লক্ষ্য অর্জনে সমবায় বিশেষ ভূমিকা পালন করতে পারে।” মৌলভীবাজার জেলায় ৪৯তম জাতীয় সমবায় দিবস ২০২০ যথাযোগ্য মর্যাদায় ও যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণপূর্বক উদযাপন উপলক্ষে অায়োজিত অালোচনা সভায় সভাপতির বক্তৃতায় মৌলভীবাজারের জেলা প্রশাসক মীর নাহিদ আহসান এসব কথা বলেন।

“বঙ্গবন্ধুর দর্শন, সমবায়ে উন্নয়ন” এই প্রতিপাদ্য নিয়ে ৪৯তম জাতীয় সমবায় দিবস ২০২০ উপলক্ষ্যে আজ ৭ নভেম্বর শনিবার যথাযথ স্বাস্থ্য বিধি অনুসরণপূর্বক জেলা প্রশাসন, মৌলভীবাজার জেলা সমবায় বিভাগ, মৌলভীবাজার ও মৌলভীবাজার জেলার সমবায়ীবৃন্দের আয়োজনে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন নেছার আহমদ এমপি। বিশেষ অতিথি ছিলেন মৌলভীবাজার পৌর মেয়র মোঃ ফজলুর রহমান, আঞ্চলিক সমবায় প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটের অধ্যক্ষ মোঃ দুলাল মিয়া।
সমবায়ীবৃন্দের পক্ষে বক্তব্য দেন বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির মৌলভীবাজার জেলা সদস্য ও শ্রীমঙ্গল উপজেলা শাখার সভাপতি দেওয়ান মাসুকুর রহমান। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন ওয়ার্কার্স পার্টির মৌলভীবাজার জেলা সম্পাদক তাপস কুমার ঘোষ।
সমবায়ীবৃন্দের পক্ষে দেওয়ান মাসুকুর রহমান বলেন, “করোনাকালে সমবায়ীরা কোনো প্রণোদনা সহায়তা পায়নি। জেলার সমবায় ব্যাংকের কোটি কোটি টাকার নিজস্ব ভূমি কুচক্রীমহলের দখলে। ওয়েবসাইটে সমবায়ীদের কোনো তালিকা নাাই। এই তিনটি বিষয়ে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য দাবী করছি।”
অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন মৌলভীবাজারের জেলা প্রশাসক মীর নাহিদ আহসান।