চৈত্রশেষের গান

প্রকাশিত: ৯:১১ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ১৩, ২০২১

চৈত্রশেষের গান

|| কমলকলি চৌধুরী ||

একদিন চলে যাবো তোমাদের ছেড়ে, দূরে — বহুদূরে…
জানি, সেদিনও আকাশে উঠিবে
সন্ধ্যাতারা, ফুটিবে কৃষ্ণচূড়া,
জ্যোৎস্নার জলে গা ভেজাবে ফাল্গুনের রাত, বহিবে নদীর প্রপাত।

একদিন চলে যাবো তোমাদের ছেড়ে, দূরে — বহুদূরে…
সেদিনও জানি, প্রবল প্রতাপে বইবে দখিনা বাতাস,
বাসকলতা ললনার মতো পড়বে নুয়ে —
ছুঁয়ে ছুঁয়ে যাবে সবুজ ঘাস!

একদিন চলে যাবো তোমাদের ছেড়ে, দূরে — বহুদূরে…

একদিন কোনো এক কালে —
জোছনার সাথে মিতালি ছিলো,
ফুল-পাখি-ঘাস ছিলো, অনন্ত আকাশ ছিলো,
মহুয়ার বন ছিলো, গোধূলির রঙ ছিলো,
বেপরোয়া ঝড় ছিলো, কাকাতুয়া-ঘর ছিলো!

একদিন কোনো এক কালে —
স্রোতস্বিনী এক নদী ছিলো,
ময়ূরপঙ্খি নাও ছিলো, আহা!
ময়ূরকণ্ঠী রাতে মাতাল হাওয়া লাগতো পালে —
একদিন, কোনো এক কালে!

স্বপ্নে স্বপ্নে কেবল দিয়েছি নিজেরেই ফাঁকি,
এখন তাই, তোমাদের রঙিন পৃথিবী — দূর থেকে দেখি
আর বুকের গভীরে জমা অভিমান সযতনে আড়ালে রাখি।

আমার পৃথিবী জুড়ে —
ঘাসগুলো আজ হয়েছে ধূসর, জোছনা হয়েছে ম্লান!
তাই আর আমার হয় না এখন আলোর নদীতে স্নান।

ভিডিওগ্রাফি Aykya Anik

রিপোস্ট