নারী ইউএনও’র বিকল্প চাওয়া নারীর মর্যাদা ও সম-অধিকার হরণ এবং অশ্রদ্ধা প্রদর্শনের বহিঃপ্রকাশ: ওয়ার্কার্স পার্টি

প্রকাশিত: ১১:৪৮ পূর্বাহ্ণ, জুন ১৬, ২০২১

নারী ইউএনও’র বিকল্প চাওয়া নারীর মর্যাদা ও সম-অধিকার হরণ এবং অশ্রদ্ধা প্রদর্শনের বহিঃপ্রকাশ: ওয়ার্কার্স পার্টি

বিশেষ প্রতিনিধি | ঢাকা, ১৬ জুন ২০২১ : বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি কমরেড রাশেদ খান মেনন এমপি ও সাধারণ সম্পাদক কমরেড ফজলে হোসেন বাদশা এমপি আজ এক বিবৃতিতে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মৃত্যুর পর ‘গার্ড অব অনার’ দেয়ার জন্য নারী ইউএনও’র পরিবর্তে বিকল্প চাওয়ার মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়-সংসদীয় কমিটির প্রস্তাবনা সম্পর্কে গভীর উদ্বেগ, নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

বিবৃতিতে তাঁরা মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়-সংসদীয় কমিটির সুপারিশের তীব্র সমালোচনা করে বলেন, এই সুপারিশ মুক্তিযুদ্ধের অবমানা ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বিরোধী কাজ এবং এই প্রস্তাব সংবিধানের ২৮(১) ও (২) অনুচ্ছেদের সুস্পষ্ট লংঘন ও পরিপন্থি। এই ধরণের প্রস্তাব নারীর মর্যাদা ও সম-অধিকার হরণ এবং অশ্রদ্ধা প্রকাশের হীন বহিঃপ্রকাশ।
বিবৃতিতে নেতৃদ্বয়, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রীকে এই বিষয়ে কোনো রকম সিদ্ধান্ত গ্রহণ না করার আহবান জানান।

বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মৃত্যুর পর ‘গার্ড অব অনার’ দেয়ার জন্য নারী ইউএনও’র পরিবর্তে বিকল্প চাওয়ার মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়-সংসদীয় কমিটির প্রস্তাবনা সম্পর্কে গভীর উদ্বেগ, নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির মৌলভীবাজার জেলা সম্পাদক মণ্ডলীর সদস্য, আরপি নিউজের সম্পাদক ও বিশিষ্ট কলামিস্ট সৈয়দ আমিরুজ্জামান।