সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী কানিজ রেহনুমা রাব্বানী ভাষা আর নেই

প্রকাশিত: ১১:২৯ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ১৪, ২০২১

সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী কানিজ রেহনুমা রাব্বানী ভাষা আর নেই

নিজস্ব প্রতিবেদক | সিলেট, ১৪ জুলাই ২০২১ : তৃণমূল নারী উদ্দোক্তা সোসাইটি (গ্রাসরুটস)-এর সুনামগঞ্জ জেলা কমিটির সদস্য, সুনামগঞ্জ জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক, ঢাকাস্থ সুনামগঞ্জ সমিতির সাধারণ সম্পাদক ও সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী কানিজ রেহনুমা রাব্বানী ভাষা (৩৪) করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে না ফেরার দেশে চলে গেলেন।

তিনি বুধবার (১৪ জুলাই ২০২১) ভোর সাড়ে ৪টায় তিনি সিলেটের মাউন্ড এডোরা হাসপাতালে ইন্তেকাল করেন।
তিনি মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজেলার উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) খন্দকার মুদাচ্ছির বিন আলীর সহধর্মিণী ও সুনামগঞ্জের প্রয়াত নেতা গোলাম রাব্বানীর বড় মেয়ে কানিজ রেহনুমা রাব্বানী ভাষা (৩৪) মৃতুবরণ করেন।

ভাষা সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সিনিয়র সহসভাপতি ও প্রয়াত নেতা গোলাম রাব্বানীর বড় মেয়ে। তার মা শামসুন্নাহার বেগম শাহানা রব্বানী জেলা বারের এডভোকেট ও পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি), জাতীয় সংসদের মৌলভীবাজার-সুনামগঞ্জের সংরক্ষিত আসনের সাবেক সদস্য এবং সুনামগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি।

সুনামগন্জ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও কেন্দ্রীয় যুবলীগের উপ-সম্পাদক এডভোকেট ফজলে রাব্বি স্বরন ও ডা: কানিজ রহিমা কথা’র বড় বোন তিনি। এছাড়াও তিনি তৃণমূল নারী উদ্দোক্তা সোসাইটি (গ্রাসরুটস)-এর কেন্দ্রীয় কমিটির সহসভাপতি ফৌজিয়ারা শাম্মীর ভাগ্নী।

এদিকে কানিজ রেহনুমা ভাষার মৃত্যুতে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছেন যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশের স্ত্রী ও সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী অ্যাডভোকেট নাহিদ সুলতানা যুথি।

তিনি লিখেছেন, “কীভাবে কী লিখব, কী বলব কিছুই বুঝছি না। এইতো কয়দিন আগে আমাকে কি সুন্দর একটা ম্যাসেজ করল, ওর কে একজন আমাদের সঙ্গে দেখা করবে, আর আমাদের যদি কিছু লাগে, সময় চাইছিল, আমি উত্তর দিতে পারি নাই তোমাকে বোন। ভেবেছিলাম একটু কয়েকটা দিন গেলে উত্তর দেব। আজকে কি শুনলাম জানি না। তুমি নাই…। আমি বিশ্বাস করতে পারছি না। বেশি কঠিন কোনো কিছুতে মাথা কাজ করে না। তাই ভাবতে ও পারছি না। ভাষা, কি বলব তোমাকে জানি না, তুমি কি ভালো থাকবে একা একা? আল্লাহ এ পৃথিবী বাস যোগ্য করে দাও মানবকুলের জন্য, আমাদের না বুঝা পাপের প্রায়শ্চিত্ত অনেক তো হলো, আর কত? মৃত্যুর বোঝা ভারি হতে হতে আর বহনযোগ্য হচ্ছে না। স্বাভাবিক মৃত্যুই মানতে পারি না। আর এ কেমন . .. এ কেমন!!”

শ্রীমঙ্গলের ইউএনও নজরুল ইসলামের শোকবার্তা

শ্রীমঙ্গলের উপজেলা নির্বাহী অফিসার নজরুল ইসলাম এক শোকবার্তায় বলেন, “বিসিএস (প্রশাসন) ক্যাডারের ২৯তম ব্যাচের কর্মকর্তা, মৌলভীবাজার জেলার বড়লেখা উপজেলার উপজেলা নির্বাহী অফিসার জনাব খন্দকার মুদাচ্ছির বিন আলী মহোদয়ের সহধর্মিণী, বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী এডভোকেট কানিজ রেহনুমা রব্বানী অদ্য ১৪ জুলাই ২০২১ তারিখ ভোর ৪.৩০ মিনিটে কোভিট-১৯ এ আক্রান্ত হয়ে সিলেটের একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরন করেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহে রাজিউন)।
তাঁর মৃত্যুতে শ্রীমঙ্গল উপজেলা প্রশাসনের সকল কর্মকর্তা /কর্মচারী গভীরভাবে মর্মাহত ও শোকাহত।
শ্রীমঙ্গল উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে তাঁর বিদেহী আত্মার শান্তি ও মাগফেরাত কামনা করছি এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যগণের প্রতি গভীর সমবেদনা ও সহমর্মিতা জ্ঞাপন করছি।
মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামিন তাঁকে জান্নাতবাসী করুন। আমিন।”

ভাষাকে তার সুনামগঞ্জের পারিবারিক কবরস্থানে সমাহিত করা হবে বলে জানা গেছে।

মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজেলার উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) খন্দকার মুদাচ্ছির বিন আলীর সহধর্মিণী, তৃণমূল নারী উদ্দোক্তা সোসাইটি (গ্রাসরুটস)-এর সুনামগঞ্জ জেলা কমিটির সদস্য, সুনামগঞ্জ জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক, ঢাকাস্থ সুনামগঞ্জ সমিতির সাধারণ সম্পাদক ও সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী কানিজ রেহনুমা রাব্বানী ভাষার অকাল মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির মৌলভীবাজার জেলা সম্পাদক মণ্ডলীর সদস্য, আরপি নিউজের সম্পাদক ও বিশিষ্ট কলামিস্ট সৈয়দ আমিরুজ্জামান। তার মৃত্যুতে আরও শোক প্রকাশ করেছেন তৃণমূল নারী উদ্দোক্তা সোসাইটি( গ্রাসরুটস)-এর সিইও ও বাংলাদেশ যুবমৈত্রীর কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক হিমাংশু মিত্র, বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির মৌলভীবাজার জেলা সম্পাদক তাপস ঘোষ, শ্রীমঙ্গল উপজেলা শাখার সভাপতি দেওয়ান মাসুকুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক জালাল উদ্দীন এবং শ্রীমঙ্গল পৌর শাখার সভাপতি শেখ জুয়েল রানা ও সাধারণ সম্পাদক রোহেল আহমদ, বাংলাদেশ যুবমৈত্রীর শ্রীমঙ্গল উপজেলা শাখার সভাপতি জামাল মুশরাফিয়া ও বাংলাদেশ ছাত্রমৈত্রীর মৌলভীবাজার জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক অজিত বোনার্জি, বাংলাদেশ নারী মুক্তি সংসদের সৈয়দা তাহমিনা বেগম।