মহামারী মোকাবেলায় সাধারণ মানুষকে জরুরী পরামর্শ ও সেবা দিচ্ছে ‘করোনা ইনফো’ পোর্টাল

প্রকাশিত: ১২:০৩ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৫, ২০২১

মহামারী মোকাবেলায় সাধারণ মানুষকে জরুরী পরামর্শ ও সেবা দিচ্ছে ‘করোনা ইনফো’ পোর্টাল

| রুপোকুর রহমান | সাভার, ০৫ সেপ্টেম্বর ২০২১ : সারাদেশের মতোই এই উপজেলার সাধারণ মানুষ কোভিড ১৯ মহামারি মোকাবেলায় সরকারের পৃষ্ঠপোষকতায় পরিচালিত ‘করোনা ইনফো’ ওয়েব পোর্টাল এর মাধ্যমে উপকৃত হয়েছেন।

রাজধানীর সাভার উপজেলার মানিকান্দান প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক হেলেন কেলার বলেন, “এই ওয়েব পোর্টালটি খুবই সহায়ক। আমি, আমার স্বামী ও দুই পুত্র যখন কোভিড আক্রান্ত হয়েছিলাম তখন এই পোর্টাল থেকে চিকিৎসা পরামর্শ নিয়েছি এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলেছি।”
কোভিড-১৯ প্রাদুর্ভাবের শুরুতেই নাগরিকদের জন্য করোনা ভাইরাস সংক্রান্ত যে কোন প্রয়োজনীয় পরামর্শ এবং করোনা সম্পর্কিত সব ধরনের সেবার হালনাগাদ তথ্যের জন্য করোনা ইনফো পোর্টাল চালু করা হয়। স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় এটুআই এর তত্বাবধানে www.corona.gov.bd পোর্টালটি পরিচালিত হচ্ছে। এ ওয়েব পোর্টাল থেকে করোনার লক্ষণ ও চিকিৎসা পরামর্শসহ মহামারী মোকাবেলায় সরকারের নেওয়া বিভিন্ন পদক্ষেপ ও কার্যক্রমের সুবিধা ভোগ করছে সাধারণ মানুষ।
হেলেন বলেন, এই পোর্টালের টেলিমেডিসিন সেবা ও করোনা সংক্রান্ত মোবাইল অ্যাপ সাধারণ মানুষের জন্য খুবই উপকারি।
তিনি বলেন, “আমি যখন আমার পরিবার নিয়ে আইসোলেশনে ছিলাম, তখন এই পোর্টালের টেলিমেডিক্যাল সেবা আমাদের জন্য জীবন রক্ষাকারী হিসেবে কাজ করেছে।” এই পোর্টালের চ্যাট বটে লাইভ চ্যাটের মাধ্যমে করোনা মহামারী পরিস্থিতি ও এ সংক্রান্ত হালনাগাদ তথ্যও পাওয়া যায় বলেও তিনি উল্লেখ করেন।
এ পোর্টালে রয়েছে ৫ হাজার ২ শ’রও বেশী কন্টেন্ট। এর মধ্যে রয়েছে করোনা বিষয়ক অগ্রগতি ও নির্দেশনা, জেলা ভিত্তিক করোনা হট জোনের মানচিত্র, এটুআই ভিত্তিক চ্যাট বট এবং হটলাইন, স্বাস্থ্য বাতায়ন, আইইডিসিআর এর হেল্প লাইনসহ জাতীয় কল সেন্টারের সকল তথ্য। এই পোর্টালের চ্যাট বটের মাধ্যমে কিছু প্রশ্নের উত্তর প্রদান করে স্বয়ংক্রিয়ভাবে করোনার লক্ষণও যাচাই করা যায়।
এতে আরো রয়েছে করোনার উপসর্গ ও করণীয় সম্পর্কিত তথ্য, সন্দেহভাজন করোনা রোগী, মৃদু উপসর্গ, মাঝারি উপসর্গ, তীব্র উপসর্গ এবং পোস্ট কোভিড উপসর্গের ক্ষেত্রে করণীয় বিষয়াদি সম্পর্কিত তথ্য। প্রতিনিয়ত হালনাগাদ করায় করোনার নতুন নতুন উপসর্গ সম্পর্কেও এখান থেকে জানা যাচ্ছে। করোনা পরীক্ষা ও হাসপাতালে ভর্তি সংক্রান্ত তথ্যাদিও এতে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। এই পোর্টাল থেকে সাধারণ মানুষকে কোভিড-১৯ সংক্রান্ত সরাসরি ডাক্তারি পরামর্শ ও তথ্য সেবা দেয়া হয়।
এলাকার প্রবীণ রাজনীতিক সায়েম মোল্ল্যা বলেন, “সম্প্রতি করোনার উপসর্গ নিয়ে আমি চিন্তিত হয়ে পড়ি। করোনা ইনফো পোর্টালে দেওয়া উপসর্গের বিভিন্ন বিবরণ দেখে আমি মোটামুটি নিশ্চিত হয়ে কফ পরীক্ষা করাই। পরীক্ষায় আমার করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়। করোনা ইনফো পোর্টালের নির্দেশনা অনুসরণ করে দ্রুত চিকিৎসা নিয়ে আমি করোনামুক্ত হই।”
দ্রুত করোনা শনাক্ত হওয়ায় এবং চিকিৎসা সেবা নিয়ে সুস্থ্য হতে পারায় তিনি সরকারের এই উদ্যোগের প্রশংসা করেন।
সাভার পৌর এলাকার তালবাগ মহল্লার বাসিন্দা ব্যবসায়ী জাকির হোসেন বলেন, “স্ত্রী-সন্তানসহ আমার পরিবারের সদস্য সংখ্যা ৫ জন। পরিবারের সবারই করোনা উপসর্গ দেখা দিলে করোনা ইনফো পোর্টালে দেওয়া উপসর্গের সাথে মিলিয়ে দেখি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার সাথে এসব উপসর্গের কিছুটা ভিন্নতা রয়েছে। পরবর্তীতে করোনা টেস্টেও আমাদের নেগেটিভ রিপোর্ট আসে।”
এ পোর্টালটিতে রয়েছে করোনা বিষয়ে তুলনামূলক চিত্র, করোনা কন্ট্রাক্ট ট্রেসিং অ্যাপ টিউটোরিয়াল এবং কোভিড-১৯ ট্র্যাকার। রয়েছে সর্বশেষ সরকারী নির্দেশনা, অনলাইন কেনাকাটা, টেলিমেডিসিন সেবা, করোনা সংক্রান্ত তথ্য ও সচরাচর জিজ্ঞাসা, করোনা আক্রান্তের সম্ভাবনা নির্ণয় এবং করোনা কন্ট্্রাক্ট ট্রেসিং অ্যাপ ডাউনলোডের সিষ্টেম।
এটুআইয়ের ডিজিটাল সার্ভিস অ্যাসেসমেন্ট কনসালট্যান্ট সাজ্জাদ হোসেন বলেন, বৈশ্বিক মহামারি করোনা প্রাদুর্ভাবের শুরু থেকেই জনসাধারণের কথা চিন্তা করে করোনা আক্রান্ত, মৃতের সংখ্যাসহ চিকিৎসাসেবা সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য সেবা জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতেই করোনা ইনফো পোর্টালটি চালু করা হয়। এর মাধ্যমে সাধারণ মানুষ উপকার ভোগ করছে। করোনা সম্পর্কিত যাবতীয় তথ্য উপাত্ত জেনে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিচ্ছে। দেশের মানুষকে করোনা সংক্রান্ত তথ্য সেবা প্রদানের লক্ষ্যেই এটুআইয়ের তত্ত্বাবধানে সরকার এ পোর্টালটি চালু করে।
তিনি বলেন, করোনা ইনফো পোর্টাল থেকে করোনা ভাইরাস সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য থেকে দেশের মানুষ সুযোগ-সুবিধা ভোগ করছে। এ পোর্টালটি’র পরিধি বাড়ালে জনগণ আরও বেশী মাত্রায় উপকৃত হবে।
করোনা ভাইরাসের টীকা সংক্রান্ত সেবা প্রাপ্তির লক্ষ্যে নিবন্ধনকরন, অ্যাপ ডাউনলোড এবং টিকা গ্রহণ পরবর্তী শারীরিক জটিলতার বিষয়ে ডাক্তারি পরামর্শের ব্যবস্থাও রাখা হয়েছে এ ওয়েব পোর্টালে। জরুরী সহযোগিতার জন্য সংযুক্ত করা হয়েছে অক্সিজেন সহায়তা ও অ্যাম্বুলেন্স সার্ভিস, যা সাধারণ মানুষের সেবা প্রাপ্তিকে আরও সহজতর করেছে।
প্রতিদিন গড়ে সাড়ে ৫ হাজার মানুষ এই পোর্টাল ভিজিট করেন। করোনা ইনফো পোর্টালে লাইভ করোনা আপডেটসহ রয়েছে প্রতিদিনের আপডেট তথ্য। এতে মোট পরীক্ষা ছাড়াও সংযুক্ত করা হয়েছে নতুন আক্রান্ত, সুস্থতার ও মৃত্যুর সংখ্যা এবং করোনা ভাইরাস সংক্রান্ত সর্বশেষ সরকারী নির্দেশনা।
শুরু থেকে এ পর্যন্ত ৩ কোটি ২০ লাখের বেশি বার করোনা বিষয়ক বিভিন্ন তথ্যের জন্য এই পোর্টাল ভিজিট করা হয়েছে। এ পোর্টাল থেকে এ পর্যন্ত ১১ লাখ ২৬ হাজার ৩’শ ৪১ জন মানুষ স্বাস্থ্য সেবা পেয়েছে। ৪ লাখ ১৪ হাজার ৬’শ ২১ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর অ্যাসেসমেন্ট করা হয়েছে। ফলোআপ সেবা নিয়েছেন ৩ লাখ ৭৮ হাজার ৭’শ ৪৬ জন। এছাড়াও ৩ লাখ ৩২ হাজার ৯’শ ৪৪জন সরাসরি ফোনের মাধ্যমে স্বাস্থ্য সেবা নিয়েছেন।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ