স্বদেশে পাকিস্তানী পতাকা উড়ানো ও জার্সি প্রদর্শন অপরাধ এবং রাষ্ট্রদ্রোহিতার সামিল: ছাত্রমৈত্রী

প্রকাশিত: ৮:০২ পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ২৩, ২০২১

স্বদেশে পাকিস্তানী পতাকা উড়ানো ও জার্সি প্রদর্শন অপরাধ এবং রাষ্ট্রদ্রোহিতার সামিল: ছাত্রমৈত্রী

হিসাম খান ফয়সাল, নিজস্ব প্রতিবেদক | ঢাকা, ২৩ নভেম্বর ২০২১ : অতি সম্প্রতি বাংলাদেশ-পাকিস্তান টি২০ ক্রিকেট সিরিজের প্রথম খেলায় মিরপুর শেরে-ই-বাংলা নগর ক্রিকেট স্টেডিয়ামে খেলা চলাকালীন পাকিস্তানী জার্সি পরে ও পতাকা হাতে নিয়ে দর্শক গ্যালারিতে একদল পাকিস্তানপন্থী ভাড়াটে দর্শক পাকিস্তান জার্সি ও পতাকা প্রদর্শন করে, যা সুপরিকল্পিত এবং রাজনৈতিক উদ্দেশ্য প্রণোদিত।

বাংলাদেশ ছাত্রমৈত্রীর সভাপতি কাজী আব্দুল মোতালেব জুয়েল এবং সাধারণ সম্পাদক অতুলন দাস আলো এক যৌথ বিবৃতিতে বলেন ১৯৭১-এর মহান মুক্তিযুদ্ধে পাকিস্তানের গণহত্যা এখনো বিস্মৃত হয়নি। ৭১’এ পাকিস্তান বাহিনী পরাজিত হলেও তাদের এদেশের দোসররা এখনো সক্রিয়। পাকিস্তান এখনো পর্যস্ত নিঃশর্ত ক্ষমা চায়নি এবং সে সময়ের লুন্ঠিত সকল সম্পদ ফেরত দেয়নি।
স্বাধীনতার সূবর্ণ জয়ন্তী চলাকালীন ক্রিকেট খেলাকে কেন্দ্র করে পাকিস্তানী পতাকা ও জার্সি প্রদর্শনের মধ্যে রাজনৈতিক দূরভিসন্ধি রয়েছে।
পাকিস্তানী পতাকা এবং জার্সি প্রদর্শন রাষ্ট্রদ্রোহিতার সামিল। নেতৃদ্বয় এহেন কর্মকান্ডে তীব্র ক্ষোভ ও প্রতিবাদ জানান এবং সেইসাথে ঘটনার সাথে জড়িত দোষী ব্যক্তিদের অনতিবিলম্বে খুঁজে বের করে গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবী করেন।
নেতৃদ্বয় আরো বলেন, পাকিস্তানী ষড়যন্ত্র রুখে দিতে দেশের যুব সমাজ ও সাধারণ মানুষকে আরো সতর্ক এবং সচেতন থাকতে হবে।
নেতৃদ্বয় মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনা সমুন্নত রাখতে দেশবাসীকে ঐক্যবদ্ধ থাকার আহবান জানান।