জনকের অনন্তযাত্রায় কী ঘটেছিল?

প্রকাশিত: ১২:১১ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৪, ২০২১

জনকের অনন্তযাত্রায় কী ঘটেছিল?

নাসরিন মুস্তাফা | ঢাকা, ০৪ ডিসেম্বর ২০২১ : ১৯৭৫ সালের ১৫ই আগস্টের কালরাতে বাংলাদেশের শত্রুরা হত্যা করেছিল জাতির পিতাকে, প্রবাসে থাকা দুই কন্যা ছাড়া তাঁর পরিবারের সদস্যদের। রক্তাক্ত বাংলাদেশ পড়ে ছিল ৩২ নম্বরের সিঁড়িতে। লাশ দাফন নিয়েও খুনীদের নানা কুকাহিনী…টুঙ্গিপাড়ায় তাঁর অনন্তযাত্রায় সাথি হতে পারেনি তাঁর প্রিয় বাঙালি, যাদেরকে ভালোবাসা ছিল তাঁর সবচেয়ে বড় শক্তি, দুর্বলতাও বটে।

জনকের অনন্তযাত্রায় কী ঘটেছিল? ইতিহাসের অন্ধকার খুঁড়ে তুলে আনা বুক ভার করা মুহূর্তগুলো নিয়ে নাট্যকার নির্দেশিত মঞ্চনাটক ”জনকের অনন্তযাত্রা”। এই নাটকের জন্য মহাকাশভর্তি ধন্যবাদ প্রিয় নাট্যকার-নির্দেশক Masum Reza ভাই এবং নাটকটির প্রযোজনা উপদেষ্টা বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক, আমার নাটকের নির্দেশক ঋত্বিক নাট্যপ্রাণ Liaquat Ali Lucky লিয়াকত আলী লাকী ভাইকে।
এরকম গুরুত্বপূর্ণ নাটক না দেখলে চলবে না। আরও অনুষঙ্গ আছে এই নাটক দেখার। প্রায় ২৬ বছর পরে আবার মঞ্চে ফিরছেন প্রিয় অভিনেতা আজিজুল হাকিম। তার ঐতিহাসিক প্রত্যাবর্তন না দেখলে চলবে না।
আমার ব্যক্তিগত অর্জনের একটি উপলক্ষ্যও আছে। প্রিয় অভিনেতা Sayem Samad অভিনয় করছেন, যার সাথে জীবন পার করছি, তার কোনো নাটক নিয়ে এরকম অপেক্ষার প্রহর আগে কাটিয়েছি কি না মনে পড়ছে না।
সবাইকে আমন্ত্রণ জানাই ”জনকের অনন্তযাত্রা” দেখার জন্য। মাসুম রেজা ভাই বলছেন, আমরা আসলেই শামিল হতে পারব জনকের অনন্তযাত্রায়। ইতিহাস আমাদের পূর্ব প্রজন্মকে বঞ্চিত হতে বাধ্য করেছিল। আমরা ভুল করতে চাই না। সশ্রদ্ধ সালাম জানাবো নাটক শেষে, নিশ্চয়ই।
আজ ও আগামীকাল সন্ধ্যে সাড়ে ছটায় শিল্পকলার মূল হলে ”জনকের অনন্তযাত্রা”।
অগ্রিম টিকেট ০১৭৩৩৮৯২৯৬১