তৃণমূলের হিংসার আগুনে জ্বলছে পশ্চিমবঙ্গ : পাল্টা প্রতিরোধ বামেদের

প্রকাশিত: ১২:১২ অপরাহ্ণ, মে ১৩, ২০২১

তৃণমূলের হিংসার আগুনে জ্বলছে পশ্চিমবঙ্গ : পাল্টা প্রতিরোধ বামেদের

পশ্চিমবঙ্গ (ভারত), ১৩ মে ২০২১ : বিধানসভা নির্বাচনের পর তৃণমূলের হিংসার আগুনে জ্বলছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ। বিজয়ী তৃণমূল সন্ত্রাসীরা তাণ্ডব চালাচ্ছে সিপিএমসহ সংযুক্ত মোর্চার নেতা-কর্মীদের বাড়িতে। ইতোমধ্যে ওদের তা-বের বলি হয়েছে ১৭ জন। বেপরোয়া সন্ত্রাসীরা লুটপাট করছে বাড়ি-ঘর, দোকানপাট, ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে। প্রাণ বাঁচাতে বিরোধী অনেক নেতাকর্মী যেমন বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যাচ্ছে, তেমনি বাঁচার জন্য বহু স্থানেরা বামপন্থী কর্মীরা পাল্টা প্রতিরোধও গড়ে তুলছেন।

এমন পরিস্থিতিতে সিপিএমের কেন্দ্রীয় ও রাজ্য নেতারা নেতাকর্মীদের বাড়ি গিয়ে পরিবারের সদস্যদের স্বান্তনা দিচ্ছেন। স্থানীয় প্রশাসনের কর্মকর্তাদের সঙ্গে দেখা করে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে বলছেন। তৃণমূলীরা প্রতিকুর রহমানসহ সিপিএমের বেশ কয়েকজন প্রার্থীর বাড়িতে হামলা ও ভাংচুর চালিয়েছে। জানা গেছে, হামলায় ক্ষতিগ্রস্তদের তথ্য সংগ্রহ করে সিপিএম নেতারা প্রশাসনের কাছে সুনির্দিষ্টভাবে অভিযোগ তুলে ধরছেন। তৃণমূলের এ ধরণের সহিংস কর্মকা-ের প্রতিবাদে বামপন্থীরা কর্মসূচি দেবে বলে জানা গেছে। এদিকে বিজেপি’র পক্ষ থেকে বলা হয়েছে তাদের কার্যালয় ভাঙচুর ও কর্মীদের দোকানপাট ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে লুট করেছে তৃণমূলকর্মী-সমর্থকরা। তাদের অন্তত ৯জন কর্মীকে হত্যা করা হয়েছে।
নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতার ঘটনায় হস্তক্ষেপ চেয়ে ইতিমধ্যে সুপ্রিম কোর্টে মামলা করেছেন ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) মুখপাত্র আইনজীবী গৌরব ভাটিয়া। আবেদনে সহিংসতা, সংঘর্ষ ও ভাঙচুরের ঘটনায় সিবিআই তদন্তের দাবি জানানো হয়েছে। বিজেপি’র কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব পশ্চিমবঙ্গের এই ঘটনার প্রতিবাদে দেশজুড়ে প্রতীকী অবস্তান কর্মসূচির ঘোষণা দিয়েছে।
তৃণমূল কর্মীদের সংযত থাকার আহ্বান জানিয়েছেন বিজয়ী তৃণমূল নেত্রী মমতা ব্যানার্জি। কিন্তু বাম কর্মীরা বলছেন, মমতার মদদেই রাজ্যের বিভিন্ন স্থানে বেপরোয়া হয়েছে তৃণমূল সন্ত্রাসীরা। উপায় না দেখে পাল্টা প্রতিরোধ লড়াইয়ে নেমেছেন বামপন্থী নেতাকর্মী ও সমর্থকরা।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ